Connect with us
20220205-223038-0000

ক্রিপ্টোকারেন্সি সংবাদ

বিটকয়েনের চাহিদা বেড়ে যাওয়ায় মাইনিং ডিফিক্যালিটি বৃদ্ধি পেয়েছে

Published

on

সম্পৃতি বিটকয়েনের মূল্য $৪০ হাজার ছাড়িয়ে যাওয়ায় এর ব্যাপক চাহিদা সৃষ্টি হয়। এরই ফলস্বরূপ গত বুধবার বিটকয়েন মাইনিং ডিফিক্যালিটি সর্বকালের সর্বোচ্চে গিয়ে পৌছায় যা গত দুই সপ্তাহের থেকে ৫.৫৬ শতাংশ বেশি।

BTC.com এর তথ্য মতে ৩১ মার্চ সর্বোচ্চ ডিফিক্যালিটি ২৮.৫৯ ট্রিলিয়নের পর ১৪ এপ্রিল এটি ১.২৬% হ্রাস পায়। বর্তমানে বিটকয়েন নেটওয়ার্কের ব্লক হাইট ৭৩৩,৮২৪ এবং মাইনিং ডিফিক্যালিটি ২৯.৭৯ ট্রিলিয়ন।

বিটকয়েন মাইনিং ডিফিক্যালিটি দ্বারা একটি ব্লকচেইনের একটি ব্লকে লেনদেন যাচাই করতে বা বিটকয়েনগুলিকে মাইনিং করতে একজন মাইনারকে কতটা পরিশ্রম করতে হবে তার পরিমাপ বোঝায়। মাইনিং ডিফিক্যালিটি প্রতি ২,০১৬ টি ব্লকে একটি সামঞ্জস্যের মধ্য দিয়ে যায়, যা সাধারণত প্রায় দুই সপ্তাহ সময় নেয়।

বিটকয়েন মাইনিং ডিফিক্যালিটি হ্যাশরেটের পরিবর্তনের সাথে অত্যন্ত সম্পর্কযুক্ত যা মাইনিং এ ব্যবহৃত প্রতি সেকেন্ডে ব্যবহৃত কম্পিউটিং শক্তিকে নির্দেশ করে। যখন হ্যাশরেট বৃদ্ধি পায় তখন মাইনিং ডিফিক্যালিটিও বৃদ্ধি পায়।

Blockchain.com এর তথ্য অনুযায়ী গত বুধবার মাইনিং ডিফিক্যালিটি এক সপ্তাহে গড়ে প্রতি সেকেন্ডে ২২০.৪৯ এক্সহ্যাশে বেড়েছে, যা ১৪ এপ্রিল থেকে ৯ শতাংশ বেশি।

বিটকয়েন মাইনিং কাউন্সিলের সাম্প্রতিক একটি সার্ভে থেকে দেখা গেছে যে এই বছরের জানুয়ারি থেকে মার্চ সময়ের মধ্যে মিশ্র উৎস থেকে বিদ্যুতের ব্যবহার ছিল ৫৮.৪%, যা এক বছর আগের ৩৬.৮% থেকে বেশি।

Continue Reading
Click to comment

মতামত দিন

Your email address will not be published.

ট্রেন্ডিং পোস্ট

Copyright 2021-22. All rights reserved.