Connect with us
20220205-223038-0000

ঝুঁকিপূর্ণ বিনিয়োগ

কোন কয়েন কেনার পর তার দাম কমে যায় কেন ?

Published

on

কি ভাবছেন ? এই একই ঘটনা আপনার সাথেও হয়েছে বা এখনও হচ্ছে ? আচ্ছা, এটা কি অলৌকিক কোন ঘটনা নাকি এটা অস্বাভাবিক কোন ঘটনা ? আর যদি এটা স্বাভাবিক ঘটনা হয়ে থাকে তাহলে আপনি কি করবেন তাই ভাবছেন ? তাহলে আরেকটু পড়ে মিলিয়ে দেখুন কোন কোন ঘটনাগুলোর সাথে আপনার ঘটনাগুলোর মিল আছে ।

পাম্প হওয়া কয়েনে এন্ট্রি নেয়া

সর্বপ্রথমে যেভুলগুলোর জন্য এমনটি হয়ে থাকে তার মধ্যে এটি প্রধান এবং সবথেকে বেশি প্রচলিত একটি সমস্যা । বেশিরভাগ নতুন ট্রেডাররাই এই ভুলটি করে থাকেন । একটু লক্ষ্য করলেই দেখতে পারবেন আপনি যে কয়েনটি ক্রয় করেছেন সেটিতে মোটামোটি বা বেশ বড় একটি পাম্প হয়েছিলো । এমন কয়েনে বিনিয়োগ করাটা বেশ ঝুঁকিপুর্ণ । এইরকম কয়েন কেনার পর তার দাম হয়তো কিছুটা বাড়তে পারে । তবে বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই এমন কয়েনের দাম কমে যায় । যার ফলে সেই মূহুর্তে কয়েনটি কিনলে আপনার লস হবে । অথবা বেশ কয়েকদিন ধরে সেই কয়েন পাম্প হবার জন্য অপেক্ষা করতেও হতে পারে । তাই পাম্প হওয়া কয়েনে বিনিয়োগ না করাটাই সর্বোত্তম ।

কয়েনটি সম্পর্কে পূর্ব ধারণা না থাকা

আপনি যে কয়েনে বিনিয়োগ করবেন সেটি সম্পর্কে না জানা থাকলে সেটিতে বিনিয়োগ করাটা ঝুঁকিপূর্ণ । এতে করে কয়েনটি কোন দিকে যাবে সেটি আন্দাজ করাটা অসম্ভব হয়ে যায় । এমন মূহুর্তে ভুল সিদ্ধান্ত নেয়াটা স্বাভাবিক ব্যাপার । এইরকম কয়েনে বিনিয়োগ করার পর কয়েনটি যদি মূল্য হারাতে থাকে তাহলে আপনি তখন দ্বিধায় পরে যাবেন । আর এই দ্বিধার জন্যই আপনি তখন সঠিক সিধান্ত নিতে ব্যর্থ হবেন । তাই বিনিয়োগের পূর্বে অবশ্যই কয়েনটি সম্পর্কে জেনে নিতে হবে ।

অন্যের থেকে শুনে বিনিয়োগ করা

বর্তমানে অনেকেই অন্যের থেকে শুনে কয়েনে বিনিয়োগ করে থাকেন । যার ফলে কয়েনটিতে “রিস্ক ম্যানেজমেন্ট” করার নূন্যতম জ্ঞানটুকুও বিনিয়োগকারীর থাকে না । কারন কয়েনটি সম্পর্কে সে নিজে কোন কিছু জানেন না । আবার জানলেও তিনি যার থেকে কয়েনটি সম্পর্কে শুনেছেন তার কথাগুলোর দ্বারা প্রভাবীত হয়ে থাকেন । ফলে বিনিয়োগকারী তার নিজের স্বাধীন সিদ্ধান্ত নিতে ব্যর্থ হন । অন্যের থেকে শুনে কোন কয়েনে বিনিয়োগ করাটা খারাপ কিছু না । তবে এই অবস্থায় আপনাকে অবশ্যই কিছুটা হলেও সেই কয়েন সম্পর্কে জেনে তারপরেই সেটিতে বিনিয়োগ করতে হবে ।

অল্প সময়ে বেশি লাভ

বহুল প্রচলিত বাজে অভ্যাসগুলোর একটি হলো অল্প সময়ে বেশি লাভ খোঁজা । বর্তমান বিনিয়োগকারীদের মধ্যে ধৈর্যের ব্যাপক অভাব লক্ষ্য করা যায় । বেশি লাভ করার জন্য এতোটাই উদ্বুদ্ধ থাকেন যে তারা সঠিক সময়ে সঠিক বিনিয়োগ করা থেকে বিরত থাকেন । সঠিক সময়ে বিনিয়োগ না করলে সেটা থেকে আশানুরুপ লাভবান হওয়ার যায় না । আবার এই অল্প সময়ে দু’একবার বড় ধরনের প্রফিট হলেও ঠিক পরবর্তী মূহুর্তেই লস হয়ে যায় । যার ফলে অনেক সময় আপনাদের মূলধন হারানোর সম্ভাবনাও থাকে । তাই অল্প সময়ে বেশি লাভের আশা না করে সঠিক বিনিয়োগের দিকে নজর দিতে হবে ।

ফান্ডামেন্টাল এনালাইসিস সম্পর্ক অভিজ্ঞতার অভাব

কোন কয়েনে বিনিয়োগ করার পূর্বে সেই কয়েন সম্পর্কে কিছুটা হলেও ফান্ডামেন্টাল এনালাইসিস করতে হবে । কয়েনটি সম্পর্কে ফান্ডামেন্টাল এনালাইসিস করলে জানতে পারবেন আসলে কয়েনটি আদৌ কোন উপকারে বা ব্যবহারে আসবে কিনা । কোন কয়েন যদি ব্যবহার করার উপযোগী না হয় তাহলে সেই কয়েনে বিনিয়োগ করাটা বোকামি । ভেবে দেখুন যে জিনিসটি আপনার দৈনন্দিন জীবনে অপ্রয়োজনীয় সেটি কি আপনার কাছে মূল্যহীন নয় ? আসলে এইরকম কয়েনেই পাম্প-ডাম্প স্কীম হয় বেশি । যার ফলে অনেকেই পাম্প হবার পর কিনে লসের সম্মুখীন হন ।

টেকনিক্যাল এনালাইসিস সম্পর্ক অভিজ্ঞতার অভাব

ফান্ডামেন্টাল এনালাইসিস করার পর যে কাজটি অনেকেই করেন না সেটি হলো টেকনিক্যাল এনালাইসিস । টেকনিক্যাল এনালাইসিস করার মাধ্যমেই আসলে জানা যায় কয়েনটিতে কি হতে পারে । বর্তমানে অনেক কয়েনের ক্ষেত্রেই দেখা যায় নিউজ আসার পূর্বেই সেটির দাম বৃদ্ধি পায় । আবার নিউজ আসার দু’একদিন আগে অথবা পরে সেটির দাম কমে যায় । এখন কয়েনটি কি অবস্থায় আছে সেটি জেনে বিনিয়োগ করার জন্য আপনাকে টেকনিক্যাল এনালাইসিস শিখতে অথবা জানতে হবে ।

এখানে বিস্তারিতভাবে বলা কারনগুলো থেকে আজকেই শিক্ষা নিতে হবে । কারন আজকে না শিখলে এই মার্কেটে টিকে থাকাটা খুবই কঠিন হয়ে যাবে । ট্রেডিং করা যতটা সহজ আসলে ট্রেডিং করে প্রফিট করাটা ততটা সহজ বিষয় নয় । তাই আমাদেরকে বুঝে ট্রেডিং অথবা বিনিয়োগ করতে হবে ।

Continue Reading
1 Comment

1 Comment

  1. Pingback: বিটকয়েন কি পারবে আবার উচ্চতায় পৌঁছাতে ? - কয়েন আলাপ

মতামত দিন

Your email address will not be published.

ট্রেন্ডিং পোস্ট

Copyright 2021-22. All rights reserved.