Connect with us

অল্টাকয়েন

বিটকয়েন আয় । মোবাইল দিয়ে ফ্রি বিটকয়েন আয় করুন

Published

on

মোবাইল দিয়ে ফ্রি বিটকয়েন আয়

বিটকয়েন আয় করার অনেক উপায় অনেকেই শেয়ার করেছেন বিভিন্ন ওয়েবসাইটে। কিন্তু প্রকৃতপক্ষে তাদের সেসব উপায়ের একটি দিয়েও কি ফ্রি বিটকয়েন আয় করা যায়? আমি ব্যক্তিগতভাবে দেখেছি অনেকেই ফ্রিবিটকো (freebitco.in) এর কথা বলে থাকেন। অনেকে আবার কোন ফসেট এর কথা বলে থাকেন। আপনি আসলে এইসব সাইট থেকে ফ্রিতে বলার মত কোন আয় করতেই পারবেন না। যে বিটকয়েন আয় আপনি সেল করে টাকাতে রুপান্তর করতে একবছর কাজ করা লাগবে, সেটা কোন কাজের কি? যাই হোক, বিটকয়েন আয় করার সবচেয়ে ভালো উপায় হলো বিটকয়েন মাইনিং করা। তবে, মাইনিং এ অনেক বিনিয়োগ করা লাগে। তবে, আমি আজকে আপনাদের এমন দুইটা পন্থা শেয়ার করব যেগুলোতে আপনার কোনরকম বিনিয়োগ লাগবে না। কোন বিনিয়োগ ছাড়া শুধুমাত্র একটি মোবাইল দিয়ে ফ্রি বিটকয়েন আয় করতে পারবেন। আসলে একটু ভুল বললাম। কখনো বিটকয়েন, কখনো অল্টকয়েন আয় করতে পারবেন। কিন্তু কথা তো একই। আপনি অল্টকয়েনকে বিটকয়েনে ঠিকই রুপান্তর করতে পারবেন।

মোবাইল দিয়ে বিটকয়েন আয়

আমি আপনাদের সাথে যে দুইটি পন্থা শেয়ার করব সেগুলিতে ল্যাপটপ কিংবা ডেস্কটপ লাগবে,ব্যাপারটা এমন নয়। তবে ল্যাপটপ কিংবা ডেস্কটপ দিয়ে কাজ করতে সুবিধা হয়। তবে, আপনি মোবাইল দিয়েও অনায়াসে সেসব কাজ করতে পারবেন। আপনারা নিশ্চয় জানেন বিটকয়েন এর আবিষ্কারক সাতশি নাকামতো। কিন্তু জানেন কি তার একটি ফোরাম ছিল? সেটার নাম বিটকয়েনটক (bitcointalk.org)। সাতশি সেখানে অনেক পোস্ট করেন। বিটকয়েন এর প্রচার বলেন আর প্রসার বলেন উক্ত ফোরাম থেকেই শুরু হয়েছিল। ওইখানে মানুষ বিটকয়েন নিয়ে কথা বলে, অন্যান্য ক্রিপ্টোকারেন্সি নিয়ে কথা বলে। সোজা কথায়, বিটকয়েনটক ক্রিপ্টোকারেন্সি যারা পছন্দ করে তাদের জন্য খবুই সুন্দর একটি জায়গা। আমি কেন এই ফোরাম নিয়ে কথা বলছি? এর কারণ হল এই ফোরামে আপনি ক্রিপ্টোকারেন্সি নিয়ে আলাপ আলোচনা করতে পারেবেন। কিন্তু সেখানে ফ্রি বিটকয়েন আয় করতে পারেন। চলুন তাহলে জেনে নেওয়া যাক।

সিগ্নেচার ক্যাম্পেইন করে ফ্রি বিটকয়েন আয়

বিটকয়েনটক ফোরামে আপনার প্রোফাইলে সিগ্নেচার বলতে একটি অপশন রয়েছে। সেখানে আপনি চাইলে র‍্যাংকভেদে যা অনুমতি আছে তা যোগ করতে পারেন। তবে সেটা হতে হবে বি.বি কোডে লেখা। আপনি যদি আপনার সিগ্নেচারে লিখে রাখেন “সাতশি বিটকয়েন এর আবিষ্কারক।” সেটা সবাই দেখতে পাবে। আপনি যখনই কোন পোস্ট করবেন। যারা পোস্ট পড়বে তারা সবাই আপনার এই লেখাটি দেখতে পাবে। মজার ব্যাপার হচ্ছে এইরকম নির্দিষ্ট কিছু বি.বি কোডের মাধ্যমে অনেক কম্পানি তাদের প্রচারণা মুলক কাজ সেখানে করায়। মানে যারা ফোরামে এক্টিভ আছে তাদের প্রোফাইলে কম্পানিগুলো তাদের কম্পানির নাম এবং তাদের সেবাসমুহ ইত্যাদি দিয়ে বি.বি কোড ডিজাইন করে অনেক মানুষের প্রোফাইলে একটা নির্দিষ্ট এমাউন্ট বিটকয়েন এর বিনিময়ে কোড ব্যবহার করতে বলে। এতে যখনই উক্ত সিগ্নেচার কোড ব্যবহারকারী কোথাও যে কোন কিছু নিয়ে পোস্ট করছেন। তাদের প্রোফাইলের সিগ্নেচার সবার কাছে দেখা যাচ্ছে। বলাবাহুল্য, এইখানে কেউ কিন্তু নির্দিষ্ট কম্পানি নিয়ে কথা বলা লাগে না। আর মোটামুটি পেমেন্ট ও ভালো।

আপনি ফুল মেম্বার হলে ৩০ থেকে ৪০ ডলার সপ্তাহে আয় করতে পারবেন। আর যদি তার উপরের র‍্যাংক হন তাহলে আপনি মোটামুটি ৫০ থেকে ৩০০ ডলার সপ্তাহে আয় করতে পারবেন।

কিভাবে করবেন

বিটকয়েনটকে আপনাকে একটি একাউন্ট খুলতে হবে। তারপর আপনার একাউন্ট মিনিমাম ফুল মেম্বার পর্যন্ত র‍্যাংক আপ করতে হবে। ব্যাপারটা খুব কঠিন কিছু নয়। আপনার ইংরেজি দক্ষতা মোটামুটি ভালো হলে। আপনি যদি মোটামুটি ফোরামে নিয়মিত হতে পারেন তাহলে এইটা আপনার জন্য অনেক সহজ কাজ হবে। ফুল মেম্বার হওয়ার পর সার্ভিস সেকশনে গিয়ে আপনি সবগুলো রানিং ক্যাম্পেইন দেখতে পাবেন। সেখানে বেশিরভাগ সময় স্লট খালি থাকে। শুধুমাত্র স্লট খালি থাকলেই আপনি এপ্লাই করবেন। টিপস- ফোরামে জয়েন করে অবশ্যই ফোরামের নিয়ম কানুন পড়ে নিবেন। বাংলাদেশ সেকশনে ভালো মানের পোস্ট করার চেষ্টা করবেন। গ্লোবাল বোর্ডে ও ভালো মানের পোস্ট করবেন। কখনো স্পাম করবেন না।

বাউন্টি দিয়ে ফ্রি বিটকয়েন আয় করুন

বিটকয়েনটক ফোরামে যারা আইডি বিল্ড আপ করার ধৈর্য্য ধরতে পারবেন না কিংবা যারা এইরকম পোস্টের কাজ করার ইচ্ছে নেই। তারা বাউন্টির মাধ্যমে ভালো নতুন অল্টকয়েন আয় করে নিতে পারেন বাউন্টির মাধ্যমে। বাউন্টি খুবই সহজ ব্যাপার। অল্টকয়েন মার্কেটপ্লেসের বাউন্টি সেকশনে গিয়ে সব বাউন্টি দেখে নিবেন। তারপর তাদের মধ্যে রেপুটেড ক্যাম্পেইন ম্যানেজার যেমন Hhampuz, yahoo62278, julerz, Little Mouse, Royse777 এদের ক্যাম্পেইন গুলো করবেন। এদের ক্যাম্পেইন করার চেষ্টা করবেন। এদের ছাড়া অন্যদের ক্যাম্পেইন ও করতে পারেন। তবে এদের ক্যাম্পেইন ভালো হয়। এইখানে অনেক প্রজেক্ট থেকে কয়েন পাবেন যেগুলোর কোন দাম কখনো নাও হতে পারে। বাউন্টি মুলত নতুন প্রজেক্টগুলো করায়। তাদের প্রজেক্ট এর প্রমোশন এর জন্য।

কিভাবে করবেন

আপনাকে এইখানে কাজ করতে হলে ফেসবুক, টুইটার, ইন্সটাগ্রাম, রেডিট এইসব আইডি লাগবে। সবকিছু ওদের ক্যাম্পেইন থ্রেডে থাকবে। আপনি শুধু পড়ে বুঝে নিতে হবে কোনটা কি চাচ্ছে। সাধারণত ফেসবুকে লাইক, শেয়ার করা লাগে এবং টুইটারে লাইক রিটুইট করা লাগে। আপনাকে প্রথম ক্যাম্পেইন এর রুলস গুলো ভালো করে বুঝে নিতে হবে। তারপর সে অনুযায়ী এপ্লাই করে কাজ করতে হবে। এইখানে বেশিরভাগ সময় আপনার ট্রাস্ট ওয়ালেট কিংবা মাইইথারওয়ালেট লাগবে। এইটুকুই।

ফ্রি বিটকয়েন আয় করা যতটা সহজ শোনায় ততটা সহজ না। তবে, আমার জানামতে, এই দুইটা কাজ এমন যে আপনি মোবাইল দিয়ে বিটকয়েন আয় করতে পারবেন। এতে আপনার কোনরকম বিনিয়োগ লাগবে না। শুধু একটু সময় এবং নিয়মিত কাজ করা লাগবে।

Continue Reading
Click to comment

মতামত দিন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Trending

Copyright © 2021. All rights reserved.