Connect with us

বিটকয়েন

বিটকয়েন এর ফি কেন বৃদ্ধি পায়?

Published

on

ট্রাঞ্জেকশন ফি

সম্প্রতি আমরা দেখেছি বিটকয়েন এর ফি ব্যাপক হারে বৃদ্ধি পেতে যা আগে অনেক কম ছিল। আগে যেখানে একটা লেনদেন সম্পন্ন করতে ০.৫০ ডলার লাগত সেখানে বর্তমানে একটা লেনদেনে ৫ ডলার কিংবা তারও বেশি ফি লাগে। আবার অনেক সময় দেখা যায় ফি কমে ৫ ডলার এর পরিবর্তে ০.২৫ ডলার ও হয়ে যাচ্ছে। এই বৃদ্ধির পেছনে দুইটা কারন রয়েছে।

প্রথমত, বিটকয়েন এর দাম বৃদ্ধি পাওয়া। দেখুন, আমি যদিও ফি এইখানে ডলারে হিসেব করছি, প্রকৃতপক্ষে ফি কিন্তু বিটকয়েন এর ক্ষেত্রে বিটকয়েন দিয়েই হিসেব করা হয়। কিভাবে হিসেব করা হয় সেটা আমি পরবর্তীতে উল্লেখ করেছি। পড়লে বুঝতে পারবেন। যাই হোক, মুল কথায় ফিরে আসি। ধরুন, একটা লেনদেন করতে আপনার ফি লাগে ০.০০০১ বিটকয়েন। যখন বিটকয়েন এর দাম ২০০০০ ডলার, তখন ০.০০০১ বিটকয়েন এর দাম হল ২ ডলার। আবার যখন বিটকয়েন এর দাম বেড়ে ৪০০০০ ডলার হয়, তখন কিন্তু আপনার একই ফি বিটকয়েন হলেও সেটা হয়ে যাবে ৪ ডলার।

দ্বিতীয়ত, যখন বিটকয়েন এর অন-চেইন ট্রাঞ্জেকশন বেড়ে যাবে, তখনও ফি বৃদ্ধি পাবে। এইটা বুঝতে হলে আগে আপনাকে বুঝতে হবে ব্লক সাইজ কি। বিটকয়েন এর ব্লক সাইজ হল ১ মেগাবাইট কিংবা ৪ ভার্চুয়াল মেগাবাইট। আমরা যেসব লেনদেন করি এইগুলোর সাইজ কিন্তু বাইটে (byte) হয়ে থাকে। বিটকয়েন এর প্রতিটা ব্লকে সর্বোচ্চ ১ মেগাবাইট তথ্য রাখা যাবে। সে হিসেবে প্রতিদিন গড়ে ১৪৪ টি ব্লকে ১৪৪ মেগাবাইট তথ্য রাখা যায়। এর বেশি রাখা সম্ভব না। তাহলে সেক্ষেত্রে যদি প্রতিদিন ৫০০ মেগাবাইট ডাটার মত লেনদেন হয়ে থাকে, তথ্যগুলো কোথায় রাখবে কিংবা কিভাবেই রাখবে। সেজন্যই, মাইনাররা যেসব ট্রাঞ্জেকশনে ফি বেশি দেয়া হয় সেগুলো ব্লকে যোগ করে এবং বাকিগুলো রেখে দেয়। এইটার কোন নির্দিষ্টতা নেই। ১ মেগাবাইট প্রতি ব্লক হিসেব করে যতগুলো ট্রাঞ্জেকশন যোগ করা যায়, ঠিক ততগুলোই যোগ করা হবে। এখন, আপনি চাইলেই কম ফি দিয়ে একটা ট্রাঞ্জেকশন কনফার্ম করতে পারবেন না, যদি আপনি মাইনার হয়ে থাকেন, কেবল তাহলেই পারবেন। আপনার যদি একটা ট্রাঞ্জেকশন সাথে সাথে কনফার্ম করা লাগে, তাহলে আপনাকে চিন্তা করতে হবে আমি এমন ফি দেব যেন ১ মেগাবাইট তথ্যগুলোর মধ্যে আমার ট্রাঞ্জেকশন টি থাকে। মানে, আপনাকে একটা প্রতিযোগিতায় নামতে হবে। যে যত বেশি ফি দেবে, তার ট্রাঞ্জেকশন ততই দ্রুত কনফার্ম হওয়ার সুযোগ থাকবে।

কিভাবে বিটকয়েন এর ট্রাঞ্জেকশন সাইজ এবং ফি হিসেব করা হয়?

যেহেতু বিটকয়েন এর ফি হিসেব করা হয় প্রতি বাইট অনুযায়ী, আগে আমাদের জেনে নিতে হবে আমরা কিভাবে বুঝবো একটা ট্রাঞ্জেকশন এর টোটাল সাইজ কত হবে। নিচের সূত্র অনুযায়ী ট্রাঞ্জেকশন সাইজ হিসাব করা হয়।
ইনপুট*১৮০+আউটপুট*৩৪+১০ +/- ইনপুট
মনে করি, আপনি একটা এড্রেসে কিংবা আপনার ওয়ালেটে ৫ বার বিটকয়েন রিসিভ করেছেন। এখন আপনি ওই বিটকয়েনগুলো ২ জন ব্যক্তিকে পাঠাতে চাচ্ছেন। তাহলে আপনার ট্রাঞ্জেকশন সাইজ হবে নিন্মরুপঃ
৫*১৮০+২*৩৪+১০ +/- ৫
= ৯৭৮ +/- ৫
= ৯৭৩ বা ৯৮৩ বাইট

এখন, আপনি যদি মনে করেন প্রতি বাইটের জন্য ১ সাতশি দিলে আপনার ট্রাঞ্জেকশন করফার্ম হবে, তাহলে আপনার ফি যাবে= ৯৮৩*১ = ৯৮৩ সাতশি
যদি মনে করেন ২ সাতশি প্রতি বাইটে লাগবে, তাহলে ফি লাগবে= ৯৮৩*২= ২০৬৬ সাতশি।
প্রতি বাইটে কত সাতশি ফি লাগে সেটা দেখতে পারেন এইখানে- https://jochen-hoenicke.de/queue/#1,2h

যদি এই আর্টিকেল কিংবা ফি নিয়ে আপনাদের কোন প্রশ্ন থাকে, তাহলে অবশ্যই এইখানে কমেন্ট করে জানাবেন।

Continue Reading
6 Comments

6 Comments

  1. Denexceery

    May 6, 2021 at 3:45 pm

    I apologise, but you could not give little bit more information.

    • admin

      May 6, 2021 at 10:38 pm

      আপনি কি বুঝতে পারছেন না সেটা বললে আমি ওই তথ্য আপডেট করতে পারতাম।

  2. Federico

    August 12, 2021 at 6:21 am

    If you would like to obtain much from this piece of writing then you have to apply such techniques to your won weblog.

  3. zami

    August 16, 2021 at 6:16 am

    নতুন লিখা দেন

    • admin

      August 16, 2021 at 11:57 am

      ধন্যবাদ। আমরা নতুন আর্টিকেল রাইটার এর জন্য কিছুদিন লেখা বন্ধ রেখেছিলাম। ইনশাআল্লাহ আগামীকাল থেকে আবার প্রতিদিন কনটেন্ট দিব। আপডেট পেতে আমাদের টেলিগ্রাম, টুইটার কিংবা ফেসবুক পেজে এক্টিভ থাকুন।

  4. Geri

    August 28, 2021 at 1:14 am

    I have read so many content on the topic
    of the blogger lovers however this piece of writing is genuinely a pleasant paragraph,
    keep it up.

মতামত দিন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Trending

Copyright © 2021. All rights reserved.