Connect with us
20220205-223038-0000

ক্রিপ্টোকারেন্সি সংবাদ

ভারত ক্রিপ্টো আয়ের উপর ৩০% ট্যাক্স প্রস্তাব করেছে

Published

on

ভারত ডিজিটাল রুপির ঘোষণা করেছে
ভারতের অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন ক্রিপ্টোকারেন্সি থেকে আয়ের উপর ৩০% ট্যাক্স প্রস্তাবনা দিয়েছেন।

হিন্দুস্থান টাইমস হতে জানা যায়, ভারত সরকার মঙ্গলবার প্রকাশ করেছে, এটি একটি ডিজিটাল রুপি চালু করবে এবং ক্রিপ্টো ইনকামের উপরে কর আরোপ করবে।

দেশটির ২০২২ বাজেট উপস্থাপনায়, ভারতের অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন বলেছেন, ভারতীয় রিজার্ভ ব্যাংক (আরবিআই) আগামী আর্থিক বছরে একটি কেন্দ্রীয় ব্যাংক ডিজিটাল কারেন্সি উত্থাপন করবে।

CBDC হল কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্ক দ্বারা ইস্যু করা একটি ফিয়াট মুদ্রার (ইউ.এস. ডলারের মতো) ডিজিটাল সংস্করণ। সিবিডিসি-র স্টেবলকয়েনের সাথে কিছু মিল রয়েছে, তবে বিটকয়েন এবং ইথেরিয়ামের মতো ক্রিপ্টোকারেন্সি থেকে আলাদা কারণ এটি প্রাইভেটলি সেন্ট্রালাইজডভাবে নিয়ন্ত্রিত।

বিশ্বের বেশ কয়েকটি দেশ বর্তমানে তাদের নিজস্ব সিবিডিসি থাকার সুবিধা নিয়ে গবেষণা করছে, চীন তার ডিজিটাল ইউয়ান বাস্তবায়নে উন্নয়নের পথে রয়েছে।

সীতারামনের মতে, সিবিডিসি বাস্তবায়ন “ডিজিটাল অর্থনীতিকে উৎসাহিত করবে”, যার ফলে আরও দক্ষ এবং সস্তা, মুদ্রা ব্যবস্থাপনা তৈরী হবে।”

মন্ত্রী যোগ করেছেন RBI “ব্লকচেন এবং অন্যান্য প্রযুক্তিকে এই ডিজিটাল রুপি ইস্যু করার জন্য ব্যবহার করবে। তিনি এই বিষয়ে আর বিস্তারিত উল্লেখ করেননি।

ভারত ক্রিপ্টো ট্যাক্স চালু করেছে,দেশটি ক্রিপ্টোকারেন্সি থেকে করা আয়ের উপর ৩০% ট্যাক্স প্রবর্তন করার পরিকল্পনা করছে।

মন্ত্রীর প্রস্তাব অনুসারে, “ভার্চুয়াল ডিজিটাল এসেটের উপহারের ক্ষেত্রে ও প্রাপককে কর দিতে হবে।

অন্য কথায়, ইনভেস্টররা লাভের উপর ট্যাক্স সরানোর জন্য মূল্য হ্রাস বা হ্যাকিংয়ের ঘটনাকে কারণ হিসেবে দেখাতে পারবে না।

প্রাক্তন অর্থ সচিব সুভাষ চন্দ্র গার্গ অবশ্য এই উদ্যোগের বিষয়ে নিজের মতামত জানিয়েছিলেন।
তিনি বলেন, ভারত সরকার প্রস্তাবিত “ক্রিপ্টোকারেন্সি অ্যান্ড রেগুলেশন অফ অফিশিয়াল ডিজিটাল কারেন্সি বিল ২০২১” আইন পাস করতে ব্যর্থ হওয়া সত্ত্বেও ক্রিপ্টো ট্যাক্স চালু করার কথা ভাবছে।
গত বছরের নভেম্বরে এই বিলটি ডিজিটাল রুপি ইস্যু করার জন্য চেষ্টা করেছিল, পাশাপাশি “সমস্ত ব্যক্তিগত ক্রিপ্টোকারেন্সি” নিষিদ্ধ করার প্রস্তাব ও করেছিল।

গার্গের মতে, ক্রিপ্টো আয়ের উপর প্রস্তাবিত ৩০% ট্যাক্সের মানে হল “ক্রিপ্টো এসেট এবং ইনভেস্টে পার্টি [হবে] শেষ হয়ে যাবে।”

এদিকে, RBI-ডিজিটাল মুদ্রার জন্য ব্লকচেইন প্রযুক্তিকে ব্যবহার নিয়ে বলেন, নয়াদিল্লির ব্লকচেইন সিকিউরিটি গবেষক এবং ইথেরিয়াম ডেভেলপার মুদিত গুপ্তা পরামর্শ দিয়েছেন, এটি বাধ্যতামূলক KYC সহ একটি নতুন প্রুফ অফ অথেনটিকেশন ” proof of authentication” (PoA) ব্লকচেইন হবে।

PoA হল একটি ব্লকচেইন অ্যালগরিদম যা ব্যবহারকারীদের পরিচয়ের উপর ভিত্তি করে তৈরী,যা তুলনামূলকভাবে দ্রুত ট্রানজেকশন করে।

“আমি এখনও এটিতে স্মার্ট কনট্রাক্ট হবে বলে আশা করি না। গুপ্ত লিখেছেন, কঠোর KYC এর প্রয়োজনীয়তা ইথেরিয়াম ব্লকচেইনে ডিজিটাল রুপিকে চালু করা অসম্ভব করে তুলবে।

Continue Reading
Click to comment

মতামত দিন

Your email address will not be published.

ট্রেন্ডিং পোস্ট

Copyright 2021-22. All rights reserved.